টঙ্গীতে জঙ্গি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে র‌্যাবের অভিযান l জেএমবির দক্ষিণাঞ্চল শাখার প্রধানসহ 8 জঙ্গি আটক

0
584

গাজীপুরের টঙ্গীতে চেরাগআলীর আইসপাড়া এলাকায় নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন জামায়াতুল মুজাহিদিন বাংলাদেশের (জেএমবি) একটি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে অভিযান চালিয়েছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) এর সদস্যরা। এ সময় জেএমবির দক্ষিণাঞ্চল শাখার প্রধানসহ চার জঙ্গিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার ভোরের এই অভিযানে তাজা বোমা, বোমা তৈরির সরঞ্জামসহ ব্যাপক বিস্ফোরক দ্রব্য উদ্ধার করা হয়েছে।

র‌্যাবের গণমাধ্যম শাখার উপপরিচালক রইসুল ইসলাম এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। বৃহস্পতিবার (২১ জুলাই) ভোর ৪টা থেকে ৬টা পর্যন্ত এই অভিযান চলে বলে জানান তিনি।

র‌্যাবের এই অভিযানে গ্রেফতার হয়েছেন জেএমবির দক্ষিণাঞ্চল শাখার কমান্ডার ও জঙ্গি প্রশিক্ষক মাহমুদুল হাসান। আরও গ্রেফতার করা হয়েছে  নাজমুস সাকিব, শরিয়তুল্লাহ শুভ ও আশিক উল আকবর আবেশ নামের তিনজনকে। এর মধ্যে আবেশ রংপুরের প্রাইম মেডিক্যাল কলেজের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র।

র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার সহকারী পরিচালক মিজান জানান, আইসপাড়ার শরিফুল ইসলামের ছয় তলা ভবনের চতুর্থ তলায় এই অভিযান চালানো হয়। জঙ্গিরা দুই মাস ধরে দুই রুমের ওই ফ্ল্যাটটি ভাড়া নিয়ে বসবাস করছিল। পরিবার নিয়ে ওঠার কথা বলেছিল জঙ্গিরা।

তিনি আরও জানান,  অভিযানের সময় এই প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে একটি পিস্তল, শতাধিক রাউন্ড গুলি, হাত বোমা, বোমা তৈরির সরঞ্জাম, কাচের গুড়া, আইসিসি পাইপ (পাইপ বোমা তৈরির উপকরণ) সহ বিপুল পরিমাণ বিস্ফোরক উদ্ধার করা হয়েছে।

র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক কমান্ডার মুফতি মাহমুদ খান জানান, বাড়িওয়ালা শরিফুল ইসলামকেও হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। তিনি যথাযথ নিয়ম মেনে বাড়ি ভাড়া দিয়েছিলেন কিনা যাচাই করা হচ্ছে। বাড়িওয়ালা জানিয়েছেন, ন্যাশনাল আইডি কার্ড ও অন্যান্য কাগজপত্র দেখানোর কথা বলা হলেও জঙ্গিরা আজ দিচ্ছি, কাল দিচ্ছি বলে দেরি করছিল।

র‌্যাবের অতিরিক্ত মহাপরিচালক কর্নেল আনোয়ার লতিফ খান বলেন, আমাদের কাছে এই প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের বিষয়ে গোয়েন্দা তথ্য ছিল। গত কয়েকদিন ধরেই এই ভবনে নজরদারি চলছিল। নিশ্চিত হয়ে বৃহস্পতিবার ভোরে আমরা অভিযান চালাই।

NO COMMENTS